তিতলি সিনেমা মা মেয়ের সুন্দর রসায়ন

Titli 2002 film review

তিতলি মুভি ২০০২

ঋতুপর্ণ ঘোষের মা ও মেয়ের মনন ভাবনা কে নিয়ে নির্মিত ১.৪২ মিনিটের সিনেমা তিতলি। বলা হয়ে থাকে ঋতুপর্ণের মতো নারী মন এমন গভীরভাবে কেউ বুঝতে পারতো না। ঠিকই বলা হয়। ঋতুপর্ণ ঘোষ তিতলি সিনেমাতে মা ও মেয়ের মন কে এমন ভাবে ফুটিয়ে তুলেছে যা বাংলা সিনেমাতে দুর্লভ। সিনেমায় মায়ের ভূমিকা তে রয়েছে অপর্ণা সেন আর মেয়ের ভূমিকা তে রয়েছে কংকনা সেন যার সিনেমায় নাম তিতলি। এবার জেনে নেওয়া যাক তিতলি সম্পর্কে।

রহিত রায় নামক সিনেমার হিরো, যা উঠতি সকল যুবতির ক্রাশ। তেমনি তিতলির ই ক্রাশ রহিত রায়। তিতলি সারাদিন রহিত রায় কে কল্পনা করে, রহিত রায় তিতলির মনের মানুষ। বিয়ে করতে চায় রহিত রায় কে। তিতলি তার মা কে অনায়াসেই বলে রহিত রায় কে বিয়ে করার ইচ্ছে । তিতলির মা ও জানে তার মেয়ের ছেলেমানুষী । প্রথমে রহিত রায়ের বয়স নিয়ে আপত্তি থাকলেও পরে ছুড়ে দেন প্রশ্ন কিভাবে রহিত রায় কে প্রস্তাব দিবে তিতলি বিয়ের??

অবশ্য তিতলি ও নাছোড়বান্দা । সে মনে মনে ঠিক করে নিয়েছে চিঠি তে তিতলি রহিত রায় কে বলবে। তবে একদিন হঠাৎ করেই তিতলির সাথে রহিত রায়ের দেখা হয়ে যায়। পথে রহিত রায়ের গাড়ি নষ্ট হওয়ায় তিতলি দের গাড়িতে চড়ে গন্তব্যে পৌঁছান রহিত রায়। পথে তিতলির সাথে তাঁর মা ও ছিলেন। মা, মেয়ে আর রহিত রায়ের দারুন আলাপ চলে। তিতলির চোখে মুখে আনন্দের ছাপ। রহিত রায় এর সিগারেটের নেশায় তিতলি আরো হারিয়ে যায়। রহিত রায় এর সিগারেট শেষ হয়ে গেলে তিতলি যায় আশে পাশে সিগারেট কিনতে।

গাড়িতে শুধু রহিত রায় আর তিতলির মা উর্মি। তখন জানা যায় রহিত রায় আর কেউ না তিতলির মার প্রাক্তন ৷ তারা দু’জনে অনেক গল্প করে। উর্মি রহিত রায় কে বলে বিয়ে করে সংসার করতে। অবশ্য উর্মি এটাও বলে যে তিতলি রহিত রায় কে বিয়ে করতে চায়, যা বলার পর দুজনেই হেসে উঠে।

তবে তাদের সম্পর্কের কথা তিতলি জানতে পেরে খুবই কষ্ট পায়। একটু ভুল ও বুঝে তাঁর মাকে। পরে অবশ্য তিতলি বুঝতে পারে তার মাকে। মায়ের চুলের ঘ্রাণ, মায়ের আঁচল, মায়ের বুকেই তিতলি ভালো বাসা খুঁজে পায়। আস্তে আস্তে তিতলি রহিত রায় কে ভুলতে শুরু করে। এদিকে রহিত রায় উর্মির কথা রাখার জন্য সংসার করার জন্য প্রস্তুতি নেয়। তিতলি চায় তার মা যেনো রহিত রায় আর তার নব বিবাহিত স্ত্রীকে মধ্যাহ্নভোজের দাওয়াত দেয়।

ছবিতে তিতলি মেয়েটার বাচ্চা সুলভ আচরণ বরাবরই দর্শক কে মুগ্ধ করবে।যেমন, তার মাকে বলছে, মা তুমি অনেক সেজে থাকবে, মা তুমি চুল খোলা রাখবে, যা আমাদের বাংলার মা মেয়ের প্রতিচ্ছবি ফুটিয়ে তোলে। সিনেমাটিতে রহিত রায়ের ভূমিকায় আমরা মিঠুন চক্রবর্তী কে দেখতে পাই, যার অভিনয় বরাবরই সকলকে মুগ্ধ করে থাকে। ছবির শেষে মনে একটা মিষ্টি অনুভূতি সৃষ্টি হবে যা প্রায় বিরল।

মা মেয়ের সুন্দর রসায়ন উপভোগ করতে অবশ্যই দেখুন ‘তিতলি ‘

ব্যক্তিগত রেটিং – ৯/১০

তিতলি সিনেমা ট্রেলার

তিতলি ২০০২ ফিল্ম

সাদিয়া আফরিন

সমাজবিজ্ঞান বিভাগ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

আরো মুভি রিভিউ

বিসর্জন ২০১৭ মুভি রিভিউ

Mumbai saga 2021

Chok bangla movie 2021 – ছক তাহসান

The Japanese Wife দ্য জাপানিজ ওয়াইফ মুভি

Sadia Afrin

Hi, I am Sadia, I have been writing on Jibhai for about 1 year, this is my site, and I am a part of Jibhai. Thanks

Leave a Comment