মোয়ানা সিনেমা

Moana

মুভি রিভিউঃ Moana

এনিমেশন / ফ্যামিলি

IMDb রেটিংঃ ৭.৬/১০

ডিউরেশন- ১ঘন্টা ৫৩মিনিট

ডিরেক্টর-Ron Clements, John Musker

গল্প টা মূলত একটা দ্বীপে বসবাসরত একটি জাতি কে কেন্দ্র করে। সেই দ্বীপের প্রধানের মেয়ে মোয়ানা। সেই দ্বীপের মানুষজন সেই দ্বীপেই আটকা পরে আছে বহু দিন যাবত তারা সেখানেই বসবাস করতো। তারা সমুদ্রের একটি সীমার বাইরে যেতে পারতো না কারণ –

সমুদ্রের দেবীর থেকে মাউই (উপদেবতা) তার হৃদয়( যা একটি সবুজ পাথর) ছিল সেটি চুরি করেছিল। এই কারণে সমুদ্রের দেবী সেই জাতির উপর ক্ষিপ্ত।তারা সমুদ্রের একটি সীমার বাইরে মাছ ধরতে যেতে পারে না। আর তাদের দ্বীপে বিভিন্ন সমস্যা দেখা দেয়,,, গাছের সব নারকেল নষ্ট হয়ে যায়,, তারা সমুদ্রের সীমার ভিতরে মাছ কম পায় এরকম নানা সমস্যা দেখা দেয়। এই কারণে মোয়ানা এর দাদি তাকে তাদের পূর্ব পুরুষের সকল কাহিনি দেখায় তার হাতে একটি পাথর (যা ছিল সমুদ্রের দেবীর হৃদয়) বলে যে এটা তাকে ফেরত দিতে তাহলে সেই দ্বীপের মানুষ সকল বিপদ থেকে রক্ষা পাবে।

তারপর মোয়ানা যাত্রা শুরু করে মাউই কে খোজার জন্য কারণ মাউই (উপদেবতা) ছাড়া এই কাজ কেউ করতে পারে না।

সেই মোতাবেক মোয়ানা ও তার পোষা মোরগটি কে নিয়ে বেরিয়ে পড়ে মাউই কে খোজার জন্য।মূলত সেইখান থেকে কমেডির মাধ্যমে টুইস্ট টা ছড়ায় পুরো মুভিতে। একসময় এক দীপে এসে মাউই কে খুঁজে পায় মোয়ানা। তাকে পাথরটি কে দেবীর কাছে পৌছে দেয়ার জন্য অনুরোধ করে।সে রাজি হয় না কারন তার হাতে সেই হাতিয়ার নেই যেটির তার শক্তি যার মাধ্যমে সে বিভিন্ন প্রানীর রূপ ধারণ করতে পারে। এক পর্যায়ে রাজি হয়। প্রথমে তারা মাউইর হাতিয়ার খুজতে বের হয়ে পড়ে। সেটিও অনেক লড়াই করে খুজে পায়। পরবর্তীতে সমুদ্রে অনেক চড়াই-উতরাই পার করে দেবীর কাছে পৌছাতে সক্ষম হয়। কিন্তু দেবী অনেক ক্ষিপ্ত থাকে মাউই এর উপর। এক পর্যায়ে দেবীর পাথরটি পাথরের জায়গায় বসিয়ে অভিশাপ মুক্ত করে মোয়ানা।

মুভিটি দেখা শুরু করলে, যদি আসলেই মুভি দেখার মানসিকতা থাকে এবং এনিমিশন দ্বারা একটু প্রভাবিত থাকেন, তাহলে আশা করা যায় আপনার মুভি দেখার পুরো সময়টা এক কথায় মুভিতে ডুবে থাকবেন।

ধন্যবাদ

সাইদুজ্জামান সাকিব

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়

Hi, I am Aatish, I have been writing on Jibhai for about 1 year, this is our site, and I am a part of Jibhai. Thanks

Hi, I am Sakib,  I have been writing on Jibhai for about 1 year, this is our site, and I am a part of Jibhai. Thanks

About Syduzzaman Sakib

Hi, I am Sakib,  I have been writing on Jibhai for about 1 year, this is our site, and I am a part of Jibhai. Thanks

View all posts by Syduzzaman Sakib →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *