আগুন নেভাতে চাওয়া ছেলেটিই উপহার দিচ্ছে আগুনঝরা ফুটবল

মার্সেলো ভিয়েরা দা সিলভা জুনিয়র

মার্সেলো ভিয়েরা দা সিলভা জুনিয়র

মার্সেলো ভিয়েরা দা সিলভা জুনিয়র, যে মার্সেলো নামেই বেশি পরিচিত। তিনি স্প্যানিশ ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে খেলেন এবং ব্রাজিল জাতীয় দলে খেলে থাকেন। সে সেরা একজন লেফট-ব্যাক হিসেবেই খেলে থাকেন।

ব্রাজিলের রিয়ো ডি জেনেরিয়োর দরিদ্র ঘরে জন্ম হয় মার্সেলোর। যার পুরো নাম মার্সেলো ভিয়েরা ডা সিলভা জুনিয়র। বাবা দমকলকর্মী এবং মা ছিলেন অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষিকা।

মার্সেলো একসময় স্বপ্ন দেখতো দমকলকর্মী হয়ে আগুন নিভানোর কাজ করবে। যে দারিদ্রতা তাকে আগুন নেভানোর স্বপ্ন দেখাতো, সেই দারিদ্রতা তাকে আগুনঝরা ফুটবল খেলার পথে নিয়ে যায়।

৯ বছর বয়সে ফুটবল খেলা শুরু করেন মার্সেলো। ১০ বছর বয়সে ফ্লুমিনিজের পেশাদার ফুটবলার হিসেবে তার নাম আসে না। কারন তখনও সে ক্লাবে জায়গা নেওয়ার মতো খেলতে পারেননি।

পরেরবছর ফ্লুমিনিজ ক্লাবে নতুন সিলেকশন শুরু হলে, মার্সেলো ক্লাবে স্থায়ীভাবে টিকে যান। সেখান থেকে নিজের সেরাটা দিয়ে, আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি।

কয়েকবার ফুটবল একাডেমি ছাড়তে হয় তাকে। কারন বাসভাড়ার অর্থের জোগান দেওয়ার সামর্থ ছিল না পরিবারের। কিন্তু যে ফুটবল ছিল তার ভালবাসা, সেই ফুটবল ছেড়ে দেয় কিভাবে!

মার্সেলো এক সাক্ষাতকারে বলেছিল “ফুটবল অনুশিলন চালিয়ে নিতে যতবার বাঁধার সম্মুখীন হয়েছি, ততবার নিজের সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করেছি।”

তার ফুটবল খেলা চালিয়ে নিতে সবচেয়ে বেশি ভূমিকা রেখেছিল, তারা দাদা সান পেদ্রো’। যিনি তার আয়ের বেশিরভাগ অর্থই মার্সেলোর ফুটবল অনুশিলনের জন্য খরচ করেছেন। ২০১৪ সালের বিশ্বকাপ চলাকাল সময়ে নিজের দাদাকে হারান মার্সেলো।

তারকা ফুটবলার এবং রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে মাঠা কাঁপানো একজনের নাম মার্সেলো। যিনি একাই লেফট-ব্যাকের দায়িত্ব নিয়ে নিজেকে মেলে ধরেন। ক্লাব ফুটবল কিংবা জাতীয় দলে নিজের সেরাটুকু দিয়ে দর্শকদের মন জয় করে থাকেন।

বর্তমানে রিয়াল মাদ্রিদের অধিনায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন ১২ নাম্বার জার্সিধারী এই ফুটবলার।

অলরাউন্ডার হিসেবে পরিচিত এই ফুটবলার লেফট ব্যাকে খেলেন। মূলত ডিফেন্ডার হিসেবে খেললেও, তারা প্রাপ্তির ঝুলিতে জমা আছে ৪১ টি গোল।

১৯৮৮ সালে জন্ম নেওয়া ৩৩ বছর বয়সী এই ফুটবলার সূচনা হয় ২০০২ সালে। ২০০২ থেকে ২০০৬ পর্যন্ত খেলেছেন ফ্লুমিনিজের হয়ে। ২০০৭ সালে যোগ দেন স্প্যানিশ ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদে।

রবার্তো কার্লোস একবার মার্সেলোর সম্পর্কে বলেছিলেন, আমার উত্তরসূরি হিসেবে মার্সেলোকেই দেখি। তার মতো দক্ষ লেফট ব্যাক খুঁজে পাওয়া দায়।

Jubaer Hasan Rabby

পাঠক, লেখক, ইতিবাচক চিন্তাবিদ, আশাবাদী, সংগঠক, দেশপ্রেমিক।

এই পোস্ট শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *