পিরিয়ডের সময় পেট ব্যথা কারণ ও সমাধান

পিরিয়ডের সময় পেট ব্যাথা

নারীদের পিরিয়ডের সময় পেট ব্যথা এর জটিলতা /অসহনীয় ব্যথা প্রশমনে দেশের পুষ্টিবিজ্ঞানীদের এক যুগান্তকারী উদ্ভাবন। 

পিরিয়ডের সময় প্রতিটি নারীরই একটু আধটু শারীরিক অস্বস্তি হয়ে থাকে।বিভিন্নরকম শারীরিক অস্বস্তি তো হয় ই আবার তার সঙ্গে থাকে পেট ব্যথা। কখনও কখনও ব্যথার দরুন দৈনন্দিন কাজকর্ম ও ঠিকমতো করা যায় নাহ। ব্যথা অনেকসময় এতোটাই তীব্র হয় যে রোগীকে খুব বিমর্ষ দেখায়।পিরিয়ডের সময় পেট ব্যথা এর সঙ্গে কারও কারও মাথাব্যথা, কোমরব্যথা বা বমি হতে পারে।

সাধারণত ১৬-২৫ বছরের মেয়েরা এ সমস্যায় বেশি  ভোগেন। 

পিরিয়ডের সময় পেট ব্যাথা infographic
ইনফোগ্রাফী

পিরিয়ডের সময় পেট ব্যথা কেন হয়? 

পিরিয়ডের সময় পেট ব্যথা ও শারীরিক অস্বস্তি, কিছু ভালো না লাগা এসব চলতেই থাকে। অনেকের হালকা পেট ব্যথা হয় এতে ভয়ের কোনো কারণ নেই।

একবার সন্তান হওয়ার পর এই তলপেট ব্যথা কমে যায়।কিন্তু ব্যথা যদি অতিরিক্ত মাত্রায় হয় এবং টানা অনেকক্ষণ ধরে হতেই থাকে তখন একে ডিজমেনোরিয়া বলা হয়।

এটি ২ ধরনের হয়ে থাকে। 

প্রাইমারি ডিজমেনোরিয়া 

এটি সাধারণত ১৮-২৫ বছর বয়সের মেয়েরা বেশি ভোগেন। এর তেমন কোনো সঠিক কারণ নেই।

দেখা যায় যে, প্রতিটি মেয়েরই মা হওয়ার আগ অবধি পিরিয়ড শুরু হলে ১ম/২য় দিন অবধি তলপেটে ব্যথা হয়, এরপর তা কমে যায়।

এসময় মেয়েদের শরীরে ডিম্বাণু তৈরি হয়।আর এই ডিম্বাণুগুলো গর্ভধারণের জন্য তৈরি থাকে। শুক্রাণুর সাথে মিলিত হলেই কেবল গর্ভধারণ সম্ভব।

তাই মিলিত না হলে, শুক্রাণুর অভাবে এই ডিম্বাণুগুলো নষ্ট হয়ে যায়। ফলশ্রুতিতে একটি সময় অন্তর এগুলি বেরতে থাকে।

ক্রমাগত এইভাবে নষ্ট হওয়ার ফলে পেট ব্যথা করতে থাকে। 

এছাড়াও কিছু কারণ যেমন, পিরিয়ড হলেই ব্যথা নিয়ে অকারণ চিন্তা, আবার বিভিন্ন কারণে মানসিক চাপ, অশান্তি, ভাঙ্গা স্বাস্থ্য, খুব বেশি কাজের চাপ থেকে মনে বিরক্তি আসে ইত্যাদি ব্যথা হওয়ার কারণ বলা চলে।

সেকেন্ডারি ডিজমেনোরিয়া 

হরমোনের সমস্যা, ডিম্বাশয়ে চকলেট সিস্ট বা পেলভিক ইনফ্লামেটরি ডিজিজ,জরায়ু টিউমার ও জন্মগত জরায়ু সমস্যার কারণে সেকেন্ডারি ডিজমেনোরিয়া হয়।

এক্ষেত্রে ব্যথা ও হয় অন্যরকম। পিরিয়ড শুরু হওয়ার ২/৩ দিন আগে থেকেই ব্যথা শুরু হয়। আর এসময় ব্যথা খুবই তীব্র হয়।

যারা এই ব্যথার ভুক্তভোগী তারাই খুব ভালো করে জানে এই ব্যথা কতোটা অসহনীয় ও কষ্টদায়ক। 

পিরিয়ডের সময় পেট ব্যথা প্রশমন করবে ‘কারকুমা সুপার ফুড’

নারীদের পিরিয়ডের সময় পেট ব্যথা প্রশমনের ক্ষেত্রে নতুন দ্বার খুঁজে পেয়েছেন দেশের পুষ্টিবিজ্ঞানীরা। এ সময় ব্যথা প্রশমনে ‘কারকুমা সুপার ফুড’ এর মতো ফাংশনাল ফুড অনেক কার্যকর।

শনিবার (২৮ নভেম্বর, ২০২০) রাজধানীর ফার্মগেটে বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিলে (বার্ক)মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে গবেষণা প্রতিবেদনের ফল প্রকাশ করা হয়।

এ বিষয়ক গবেষণাটি পরিচালনা করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটিউট অব নিউট্রিশন অ্যান্ড ফুড সায়েন্সের অধ্যাপক খালেদা ইসলাম

এবং মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ফুড টেকনোলজি অ্যান্ড নিউট্রিশনাল সায়েন্সের অধ্যাপক একে ওবায়দুল হক।

গবেষকরা তাদের উদ্ভাবন নিয়ে আশাবাদী।

গবেষণার ফল থেকে আরো জানা যায় যে,এ ধরনের ফাংশনাল ফুড মাসিক স্বাস্থ্য সমস্যায় যেমন কার্যকর, তেমনি এর কোনো পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া নাই।

যেখানে নারীরা মাসিকের অসহ্য ব্যথা প্রশমনের জন্য অনেকে ব্যথানাশক ঔষধ সেবন করেন।

যার কিনা সাইড এফেক্ট ও থাকে। কিন্তু, এ নিয়ে অর্গানিক নিউট্রিশন লিমিটেড দীর্ঘদিন যাবত দেশে ও বিদেশে গবেষণাকর্ম চালিয়ে যাচ্ছে

এবং বাংলাদেশে সাধারণ মানুষের মাঝে ফাংশনাল ফুডের প্রয়োজনীয়তা নিয়ে সচেতনতা সৃষ্টির চেষ্টা করে যাচ্ছে। 

কারকুমা অর্গানিক সুপার ফুড 

কারকুমা সুপার ফুড একাধিক ফাংশনাল ফুডের একটি মিশ্রণ, যেটি মহিলাদের মাসিক স্বাস্থ্যের উপকারিতার লক্ষ্যে বিশেষভাবে তৈরি করা হয়েছে।

এর সকল উপাদান সংগৃহীত হয়েছে পৃথিবীর বিভিন্ন নির্ভরযোগ্য উৎস হতে।

যা ইউনাইটেড স্টেট ডিপার্টমেন্ট অব এগ্রিকালচার  (USDA) অর্গানিক সার্টিফাইড। 

মূল উপকারিতা 

  • মাসিক স্বাস্থ্যে  ভূমিকা পালন করে। 
  • ব্যথা কমাতে সাহায্য করে। 
  • ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধিতে সহায়তা করে।

কার্যকারিতা 

বিভিন্ন মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় ও গবেষণাগার পরিচালিত পণ্যের /উপাদানসমূহের ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল হতে প্রমাণিত যে, এটি কোনো পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া ছাড়াই মানবদেহে অত্যন্ত কার্যকর।

এটি একটি অর্গানিক ফুড (সেইসব খাদ্য যা কোনোরকম রাসায়নিক সার বা কীটনাশক ছাড়া সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক উপায়ে উৎপাদিত হয়)। 

কারকুমা সুপার ফুড একটি (Proprietary) ফাংশনাল ফুড, এটি কোনো ঔষধ নয়।

এর উপাদানসমূহ শত শত বছর ধরে এশিয়ার বিভিন্ন অঞ্চলে খাদ্য হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। 

লিখেছেন

সুমাইয়া

চট্টগ্রাম কলেজ

আরো পড়ুন

মাইগ্রেন কি? মাইগ্রেনের ব্যথার কারণ

ডায়েট আলোচনা: কিটো, লো-কার্ব, ওয়াটার ফাস্টিং, এগ ডায়েট

চুলের যত্ন ২০২১

Hi, I am Sumaia, I have been writing on Jibhai for about 1 year, this is my site, and I am a part of Jibhai. Thanks

About Sumaia Akter

Hi, I am Sumaia, I have been writing on Jibhai for about 1 year, this is my site, and I am a part of Jibhai. Thanks

View all posts by Sumaia Akter →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *