“দ্য সিক্রেট” নামক এই মাস্টারপিস বইটি আপনার দৃষ্টিভঙ্গি বদলাতে সক্ষম।

দ্য সিক্রেট রোন্ডা বাইর্ন বই রিভিউ

দ্য সিক্রেট বই রিভিউ

“দ্য সিক্রেট” বইটি লিখেছেন বিখ্যাত লেখন রোন্ডা বাইর্ন। এটি আসলে আলোচনা করে “ল অব অ্যাট্রাকশন” এবং কিভাবে এটি আপনার জীবনে বাস্তবায়ন করবেন সেই বিষয় নিয়ে। বইটি আমাদের পরিচয় করিয়ে দেয় যে, অনেক লোক কিভাবে চিন্তা করে এবং তাদের জীবনে সেটি বাস্তবায়ন করে নিয়ে আসে সে বিষয়ে।

প্রথমেই বলতে চাই, “দ্য সিক্রেট” নামক এই মাস্টারপিস বইটি আপনার জীবন সম্পর্কে সম্পূর্ণ দৃষ্টিভঙ্গি বদলে ফেলতে সক্ষম। এটা একটা আত্ম উন্নয়নমূলক বই, যা আপনাকে আপনার প্যাশনের প্রতি ছুটতে বাধ্য করতে পারে!

“দ্য সিক্রেট” বইটি কিছু বিষয়ে গতি এনে দেয়, যেমনঃ অভিভূত হওয়া, চিত্তাকর্ষক কিছু এবং বিতকর্কিত কোনো বিষয়। যদি আপনি কিছু পাওয়ার জন্য একটি লক্ষ্য স্থির করেন এবং সেটি পাওয়ার ব্যাপারে শুধুমাত্র বিশ্বাস করাই নয় বরং আপনি কাজটি ইতোমধ্যে করে ফেলেছেন, তাহলে আপনি মুলত সেই আকাংখিত বস্তুটি পেয়ে গেছেন। 

এমন কিছু বস্তু বা বিষয় যদি থাকে, যা আপনি চাননা তাহলে আপনি মনের অজান্তেই সেসব বিষয়ের কথা চিন্তা করেন। উদাহরণ দিলে বিষয়টি আপনার কাছে আরও পরিস্কার হয়ে যাবে। যেমনঃ কোনো কারণে আপনি মানসিক যন্ত্রণায় আছেন, তাহলে সেই কারণটাকে নিয়ে আপনি সর্বদা চিন্তাগ্রস্ত আছেন। 

আপনি ক্রমাগত চিন্তার মাধ্যমেই আরও খারাপ পরিস্থিতির ছবি আকছেন। এই কৌশলটি হচ্ছে, আপনি জীবনে যে বিষয়ে ফোকাস করেন, তার থেকেও বেশি মাত্রায় পেয়ে যান!

তাই ‘ল অব অ্যাট্রাকশননের’ মুল বিষয়বস্তু হচ্ছে, আপনি আপনার শক্তি ভালো বা খারাপ, লক্ষ্য, রিলেশনশিপস বা যেখানেই কাজে লাগান না কেনো এমনকি সেটা আপনার স্বাস্থ্যের উপরও হতেই পারে। 

“দ্য সিক্রেট” বইটি আরও অন্তর্দৃষ্টি সম্পর্কে জানায়, ল্য অব অ্যাট্রাকশনের ইতিহাস সম্পর্কে ধারণা দেয় এবং একইসাথে উদাহরণ দিয়ে বুঝিয়ে দেয় যে, এটা বিভিন্ন মানুষের উপর কিভাবে কাজ করে, যা আপনাকে পড়তে উৎসাহি করে তুলবে। 

“দ্য সিক্রেট” বইটি অনেকের কাছে বেশ সাহায্য পূর্ণ হতে পারে, আবার অনেকে একে ক্ষতিকারক হিসেবেও দেখতে পারে৷ তাই বইটি পড়ার জন্য একে অর্থ এবং সময় ইনভেস্ট করার সমতুল্য হিসেবেও অনেকে দেখতে পারে। 

উপকারী দিকগুলো

বইটির একটি উল্লেখযোগ্য দিক হলো এটি আপনাকে ক্ষমতা প্রদান করবে। বইটি আপনাকে শিক্ষা দিবে বা মনে করিয়ে দিবে যে, আপনি আপনার চারপাশের পরিস্থিতিকে পরিবর্তন করে দিতে সক্ষম, এমনকি সেসব বিষয় যা আপনার জন্য নিরানন্দময়। আশাবাদ ও কল্পনাশক্তিকে কেন্দ্র করে আপনার চারপাশে অনেক কিছু আছে প্রেক্ষাপট পরিবর্তন করতে।

“দ্য সিক্রেট” বইটি বিশেষভাবে গুরুত্বারোপ করে যে, ব্যাক্তি হিসেবে আপনি কি চাচ্ছান যা আপনাকে খুবই আকর্ষণ করে। এটি ইন্ডিকেট করে যে আপনি বর্তমান যে অবস্থায় আছেন, সেখান থেকে কোন অবস্থায় যেতে চাচ্ছেন তার স্পষ্ট দিকনির্দেশ। 

আমরা সবসময় আমাদের চাহিদাকে সন্ধান করে বের করতে পারিনা যখন পরিস্থিতি অনুকুল থাকেনা। কিন্তু অধ্যবসায় এবং সীমাহীন বিশ্বাস কাংখিত বিস্তু প্রাপ্তির জন্য মুল চাবিকাঠি হিসেবে কাজ করে।

বইটি আমাদের উৎসাহ দেয় কোনো লক্ষ্য অর্জন করার জন্য কিভাবে বেটার মাইন্ড সেটাপ করতে হয় এবং অনুসন্ধান করতে শেখায় broaden-and-build বা সম্প্রসারিতকরণ থিওরি। বইটি অধ্যয়ন একটি ভালো অভিজ্ঞতা হতে পারে যা আপনাকে সাহায্য করতে পারে লক্ষ্য অর্জন করতে এবং আকাঙ্ক্ষার চেয়ে কম চাপ অনুভব করতে।

ক্ষতিকর দিকগুলো

দ্য সিক্রেট বইটি আবার ক্ষতিকারকও হতে পারে অনেকের জন্য। তাই এই বইয়ে কিছু ক্ষতিকর দিক রয়েছে। উদাহরণস্বরুপ, কিছু লোকজন মনে করেন এই বই পড়লে খ্রিস্টান বা অন্যান্য বড় ধর্মের সাথে সাংঘর্ষিক মতবাদ পাওয়া যায়। যদিও একে অনেকে একটি পরিপুরক হিসেবে দেখতে চান। 

এছাড়া অনেকের কাছে মনে হতে পারে কিভাবে ল্য অব অ্যাট্রাকশন থিওরি ব্যবহার করে ব্যায়বহুল প্রাইভেট গাড়ি বা অন্যান্য সম্পদ অর্জন করা যায়, তাও আবার বিনা পরিশ্রম করে৷ অনেক লোকজনের মুকজে বলতে শোনা যায় যে, বাহ্যিক দিকগুলোর উপর ফোকাস করে বস্তুগত সম্পদ অর্জন করা যায় যা আধ্যাত্মিক চিন্তাভাবনা বা ল্য অব অ্যাট্রাকশন ধারণার সাথে সাংঘর্ষিক।

আরও একটি বিষয় নিয়ে বেশ সমালোচনা হয়। তা হচ্ছে, আমরা নিজেরাই আমাদের জীবনকে ও চারপাশের পরিবেশ পরিস্থিতিকে ঝুকিপূর্ণ করে তুলেছি। যেমনঃ মানুষ শিশু জন্ম দেয় ফলে পৃথিবীতে জনসংখ্যা যেমন বাড়ছে তেমনি বেড়ে চলেছে দারিদ্র্যতার হার। যা বইয়ের বক্তব্যের সাথে অযৌক্তিক বলেই মনে হয়। 

তাই ল্য অব অ্যাট্রাকশন ধারণাটি আপনা-আপনি ভুল প্রমাণিত হতে পারে। কারণ বিজ্ঞানমস্ক চিন্তাধারায় এই নিয়মের প্রমাণ পাওয়া যায়না ঘটে যাওয়া ব্যাতিক্রম কিছু কারণ ছাড়া।

ল্য অব অ্যাট্রাকশন গতি রোধ করে

একটি গুরুত্ব বিষয়, যা “দ্য সিক্রেট” বইতে লেখা হয়েছে তা হচ্ছে, “আপনি ধারণার মাধ্যমে আপনার নিজস্ব জগৎ তৈরি করতে পারেন”। এভাবে আপনি অনেকের সামনে চালেঞ্জের মুখে পড়ে যেতে পারেন যা তাদের নিয়ন্ত্রণের বাইরে।

এছাড়া আপনাকে ঘিরে ঘটে যাওয়া বিভিন্ন ঘটনা, যেমনঃ গুরুতর অসুস্থতা, দূর্ঘটনা এবং অন্যান্য সিরিয়াস ইস্যু যা আপনি চিন্তা করার মাধ্যমে সহজ করে তুলতে পারেন আপিনার ব্যাক্তিগত নিয়ন্ত্রণ আরোপ করে যা ‘দ্য সিক্রেট’ বইয়ের শিক্ষা। তাই এসব চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা আপনার জন্য অসম্ভব হতে পারে যখন আপনি আপনার চারপাশের পরিস্থিতির জন্য আরও অসহায় বোধ করেন।

দ্য ল্য অব অ্যাট্রাকশন অনেক কিছু ব্যাখ্যা করার ক্ষমতা রাখে এবং ভালো দিক বা ইতিবাচক ভাবে এটিকে গ্রহণ করা উচিত। কিন্তু এমন কিছু নেতিবাচক কিছু ঘটতে পারে যা আমরা অতিক্রম করতে পারবোনা। খারাপ সময় বা ব্যার্থতা আমাদের জীবনেরই অংশ। 

সুতরাং এসব ব্যার্থতা বা বিপদ মোকাবেলা করেই আমাদের সামনে এগিয়ে যেতে হয়, যা আমাদের শশক্তিশালী করে তোলে৷ চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা না করে নিজেকে দোষারোপ করা বা অনুশোচনা করা আসলে কোনো ফলাফল বয়ে আনেনা।

দ্য সিক্রেট বইটি থেকে হাজারো মানুষ তাদের জীবনকে পরিবর্তন করার মূল বিষয়বস্তু খুজে পেয়েছে এবং সেই নীতিগুলোকে সমর্থন করছে। এমনকি অনেক লোক আছেন যারা মানসিক চাপ অনুভব করছিলেন, তারা বইটি পড়ে গুরুত্বপূর্ণ কিছু রসদ খুজে পেয়েছেন যা তাদের দুঃখ দমনে সহায়তা করেছে। 

তাদের লক্ষ্য নির্ধারণে এবং ইতিবাচক মনোভাব গঠনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে। যদিও বইটির দৃষ্টিভংগির কিছু অমিল থাকতে পারে। তবুও বইটি পড়ে এমন কিছু উপায় খুজে পাওয়া যায় যা আপনাকে সুযোগ করে দিবে চাপ উপশম করার কিছু রাস্তা এবং জীবনকে উপভোগ্য করে তোলার কিছু দিকনির্দেশনা।

যদিও লোকমুখে একটা কথা বা বাগধারা খুবই প্রচলিত আছে। তা হচ্ছে, “It’s all in the mind”. কিন্তু এর গুরুত্ব বা গভিরতা আসলে কতজন লোক উপলব্ধি করেন? এই বইটি জীবমের গতিপথ সম্পর্কে জানাতে এবং পরিবর্তন করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে আপনার জীবনে। বইটি আরও শিক্ষা দেয়, কিভাবে আপনি নতুনত্ব বা বৈচিত্র নিয়ে আসবেন আপনার জীবনে এবং নিজেই নিজের জীবন কাঠামো ও সফলতার রূপকার হবেন।

পরিশেষে 

“দ্যা সিক্রেট” বইটি আপনাকে আপনার লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য সম্পর্কে সচেতন করে তুলবে এবং বর্তমান বা ভবিষ্যতে আগত কঠিন সব মুহুর্তগুলো মোকাবিলা ও সমাধান করতে সাহায্য করবে৷ বইটি সম্পর্কের উন্নতি কিভাবে করা যায় সে বিষয়েও শিক্ষা দেয় এবং চাপমুক্ত থাকতে সহায়তা করে।

বইটিতে ফুটে উঠেছে বিভিন্ন ধরনের কৌশল এবং শর্টকাট যা আপনার জীবনের মুল কনসেপ্ট তৈরিতে ভূমিকা রাখতে পারে। সর্বসাকুল্যে একটি কথা না বললেই নয়, এটি একটি মাস্ট রিড বই যা একজনকে আবিষ্কার করতে সাহায্য করবে, ব্যাক্তি হিসেবে একজনের প্রকৃত চাহিদা বা আকাঙ্ক্ষা কেমন হওয়া উচিত সে বিষয়ে শিক্ষা দিবে। জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে উন্নতি করার জায়গা খুজে পেতে এবং ব্যাক্তির ভিতর লুকিয়ে থাকা অপার সম্ভাবনাকে খুজে পেতে সাহায্য করবে৷ 

আরেকটি বই সমন্ধে পড়ুন সেরা আত্মগঠনমূলক বই দ্য ম্যাজিক অব থিংকিং বিগ

আপনি যদি বইটি না পড়ে থাকেন তাহলে আজ থেকেই পড়া শুরু করে দিন।

Mehedi Hasan

আমি মেহেদী হাসান শাওন। পড়াশোনা করছি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে। লেখালিখি করা আমার প্রিয় শখ।

এই পোস্ট শেয়ার করুন

1 thought on ““দ্য সিক্রেট” নামক এই মাস্টারপিস বইটি আপনার দৃষ্টিভঙ্গি বদলাতে সক্ষম।”

Leave a Comment