বাবর অখন্ড সংস্করন ঐতিহাসিক উপন্যাস: পিরিমকুল কাদিরভ

বাবর (অখন্ড)

লেখক :পিরিমকুল কাদিরভ 
ক্যাটাগরি : ঐতিহাসিক উপন্যাস
অনুবাদ :ঐশী প্রকাশনী

সম্পাদনা: ফারুক ন‌ওয়াজ

বাবর অখন্ড সংস্করন উপন্যাস পিরিমকুল কাদিরভ 


ছোট রাজ্য “ফারগান” রাজ্যের শাসক ওমর শেখ মির্জার ছেলে জহিরুদ্দিন মুহম্মদ বাবর‌

ধৈর্য শীল,সাহসী, সৃজনশীল,দয়ালু এবং মননশীল বাবর নানা চড়াইউতরাই পেরিয়ে ইতিহাসের শ্রেষ্ঠ আসনে জায়গা করে নিয়েছিলেন।সম্পূর্ন নিজের যোগ্যতায় প্রতিষ্ঠিত হয়েছিলেন একজন মহামান্য সম্রাট হিসেবে। ক্ষুদ্র এক রাজ্যের শাসকের ছেলে হয়েও এতো বড় একটি সাম্রাজ্যের প্রতিষ্ঠা করেছিলেন যা তাঁর পরবর্তী বংশধররা কয়েকশত বছর ধরে শাসন করেছিলেন। মুঘল সাম্রাজ্যের প্রতিষ্ঠাতা বাবর ছিলেন দুর্দান্ত যোদ্ধা, ধার্মিক, আদর্শ পিতা,ন্যায়পরায়ণ শাসক ,কবি ও সাহিত্যিক।


কোন বাস্তব ব্যক্তিজীবন নিয়ে প্রবন্ধ, নাটক , কবিতা অতি সহজেই লেখা যায়

কিন্তু উপন্যাস লেখা অনেক কঠিন । কারণ এখানে বাস্তব সত্য থাকে।অথচ প্রখ্যাত উজবেক লেখক পিরিমকুল কাদিরভের “বাবর” উপন্যাসটি এতো সুন্দর ও অনবদ্যভাবে লিখেছেন যার প্রশংসা সকল কে করতেই হবে। এ উপন্যাসটি   রচিত হয়েছে ভারতের মহান মুঘল সাম্রাজ্যের প্রতিষ্ঠাতা ,প্রাচ্যে সুপরিচিত গীতিকবি ও প্রবলপ্রতাপান্বিত সম্রাট জহিরুদ্দিন বাবরের জীবন ও কাব্যসম্ভার নিয়ে।


বাবরের কবিতার বাংলা অনুবাদ নিচে দেওয়া হল:

“কোথা সুখ?কোথা মান ,ক্ষমতা ও খ্যাতি?নেই!কোথা দোস্ত?ডাইনে বাঁয়ে নেই কোনো ব্যথী।নেই!সব‌ই ছিল জল্লাদ, তুমি সব করেছ ছেদন,লোকের সঙ্গে দেখা হলে পিছে শুনি যে রোদন।”
(ব‌ইয়ের শেষে এটা সহ আরো কিছু কবিতা রয়েছে যা সম্রাট বাবরের কবিতার বাংলা অনুবাদ)
এক‌ই ব্যক্তির চরিত্রের মধ্যে কবি ও শাসক এই দুই বিপরীতধর্মী গুণের মিলন কী করে সম্ভব তা এই উপন্যাসের মাধ্যমে লেখক পিরিমকুল কাদিরভ পাঠকদের বুঝতে চেষ্টা করেছেন।
উপন্যাসটি পড়ে পাঠক বুঝতে পারবে নিজের মন কে দ্বিধাবিভক্ত করতে গিয়ে কী মূল্যটাই না সম্রাট বাবর কে দিতে হয়েছিল ।যা শেষ পর্যন্ত তাঁর জীবনে দুঃখ – দুর্দশা নিয়ে আসে।উপন্যাসের সব চরিত্র ঐতিহাসিক। একমাত্র ব্যতিক্রম -কৃষক তাহির,যে পরবতীতে সম্রাট বাবরের দেহরক্ষী এবং চরম দুর্ভোগের দিনের সঙ্গী হয়।এই তাহিরের মধ্যে  দিয়ে লেখক মূলত আমাদের সামনে বাবরের জীবন্ত একটা প্রতিচ্ছবি তুলে ধরার চেষ্টা করেছেন।


লেখক পরিচিতি:

বিপ্লবের পর সদ্য জন্ম নেয়া রাশিয়া জন্ম দিয়েছিল অনেক বিখ্যাত সাহিত্যিক কে। তাদের এই সাহিত্য কর্ম গুলো বিশ্ব সাহিত্যের অন্যতম অংশ। তলস্তয়,গোর্কি এর মতো কালজয়ী লেখকের হাত ধরে রুশ সাহিত্য অন্য এক সীমায় পৌছে গেছে।পিরিমকুল কাদিরভ এমন‌ই একজন কথাসাহিত্যিক। তাঁর অমর কীর্তি এই “বাবর”।প্রখ্যাত ব্যক্তিত্ব এই সাহিত্যিক ব্যক্তিত্ব পিরিমকুল কাদিরভ জন্ম ১৯২৮ সালে । তাঁর উল্লেখযোগ্য দুটি উপন্যাস হলো যথাক্রমে “তিনটি মূল” এবং “কালো চোখ”।”উত্তরাধিকার”তাঁর উল্লেখযোগ্য একটি বড় গল্প।


উপন্যাসটি :৩৮৪ পৃষ্ঠার (অখন্ড) “রকমারি ডট কম”এ ব‌ইটি পেয়ে যাবেন।দাম ৩৫০৳ । তাছাড়া আপনি খন্ড খন্ড আকারেও কিনতে পারবেন।


রিভিউ লেখক: সামিউল হক নিঝুম

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়।

আরো বই রিভিউ পড়ুন

আদর্শ হিন্দু হোটেল

“জোছনা ও জননীর গল্প ” বইটির রিভিউ

বরফ গলা নদী বইটির রিভিউ

বাদশাহ নামদার বই রিভিউ

Leave a Comment